মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ১০:১১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
নির্যাতনের প্রতিবাদ ও ন্যায় বিচারের দাবীতে ব্যবসায়ীর মানববন্ধন ‘মাদকাসক্তি, অপরাধ নাকি মানসিক রোগ?এর প্রতিকার’ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত কুর্মিটোলায় স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি উদ্বোধন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সবুজায়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে পরিবেশের উন্নতি সাধন করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রীর ঐচ্ছিক তহবিল হতে অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ বাংলাদেশ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে : শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শিশুদের মেধা মনন বিকাশে সঠিক পরিচর্যা নিতে হবে : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ডুমুরিয়ায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ঢাকার ৬২টি ইউনিয়নে শুরু হচ্ছে ক্যাশলেস স্মার্ট সেবা দেশের বাজারে ওয়ানপ্লাস আনলো ফ্ল্যাগশিপ ফোন নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি

যুক্তরাজ্যের রেকর্ড উষ্ণতম দিন হতে যাচ্ছে মঙ্গলবার

বিদেশ ডেস্ক : যুক্তরাজ্য রেকর্ড উষ্ণতম দিন দেখতে প্রস্তুত, মঙ্গলবার দেশটির তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত পৌঁছাবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। খবর বিবিসি।

সোমবার সাফোকে সর্বোচ্চ ৩৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস পৌঁছে, যা যুক্তরাজ্যে ২০১৯ সালে রেকর্ড করা ৩৮.৭ ডিগ্রির রেকর্ডের চেয়ে কম। ওয়েলস ৩৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে তার উষ্ণতম দিন রেকর্ড করেছে।

এর আগে এই তাপমাত্রা যুক্তরাজ্য দেখেনি। মঙ্গলবারের পরেও গরম কমার সম্ভাবনার কথা জানাতে পারেনি আবহাওয়া দপ্তর।

ইতোমধ্যে মধ্য, উত্তর ও দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডের বেশিরভাগ অংশ জুড়ে লাল চরম তাপ সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া অফিস । নাগরিকদের বাড়িতে থাকার নির্দেশিকা জারি হয়েছে।

ইতিমধ্যেই প্রবল গরমে নাজেহাল যুক্তরাজ্যের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। বিপর্যস্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ। বিদ্যুতের অভাবে বন্ধ করে দিতে হচ্ছে একাধিক গণপরিবহন। বেশ কিছু রুটের ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। মেট্রো পরিষেবাও নিয়মিত দেওয়া যাচ্ছে না। বাসের সংখ্যাও কমেছে। লুটন বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাপমাত্রার জন্য বিমানবন্দরের রানওয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সবচেয়ে খারাপ অবস্থা লন্ডনের। রাজধানীর মেয়র জানিয়েছেন, খুব প্রয়োজন না হলে কেউ যেন বাড়ি থেকে বের না হন। হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক ও নার্সদের সজাগ থাকতে বলা হয়েছে। কারণ গরমের কারণে রোগীর সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের দিকেও নজর রাখা হচ্ছে। গরমের জন্য তারা আরো অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। মেয়র জানিয়েছেন, যথাসম্ভব বাড়িতে বসেই কাজ করতে। বিশেষ বার্তা দেওয়া হয়েছে বয়স্ক এবং শিশুদের জন্য।

লন্ডন-সহ যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে অধিকাংশ স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যে স্কুলগুলো খোলা, সেখানে পুলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পানির স্প্রের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের মতোই অবস্থা ইউরোপের একাধিক দেশের। দক্ষিণ পশ্চিম ইউরোপে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি তাপপ্রবাহ ঘটছে। তবে তা ক্রমশ উত্তরের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। পর্তুগাল, ফ্রান্স, স্পেনে দাবানল শুরু হয়েছে। শুকনো গরমে জঙ্গলে আগুন লেগে গেছে। জার্মানি এবং নেদারল্যান্ডসেও মঙ্গলবার থেকে গরম বাড়বে। তাপপ্রবাহ ক্রমশ উত্তর দিকে এগোচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 ithostseba.com
Design & Developed BY Hostitbd.Com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com